| | বুধবার, ২৮শে পৌষ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি |

হালুয়াঘাটে জামাতার বাড়ি থেকে শ্বশুরের জবাই করা লাশ উদ্বার

প্রকাশিতঃ ৪:৫০ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৪, ২০২১

somoy news

জোটন চন্দ্র ঘোষ,হালুয়াঘাট : ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে জামাতার বাড়ি থেকে শ্বশুরের জবাই করা লাশ উদ্বার করেছেন হালুয়াঘাট থানা পুলিশ।
জানা যায়, জমি নিয়ে পূর্ব বিরোধের জেরে নিজ কন্যার জামাতার বাড়িতে হত্যাকান্ডের শিকার জব্বার আলী (৭৫) নামে এক বৃদ্ধ। মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) ভোরে উপজেলার কৈচাপুর ইউনিয়নের গাঙ্গিনাপাড় এলাকার মৃত ইছব আলীর পুত্র নজরুল ইসলামের (কন্যার জামাতা) বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের শরীর জুড়ে দেশীয় অস্ত্রের আঘাতের চি‎হ্ন রয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হত্যাকান্ডে জড়িত সন্দেহে পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহীনুজ্জামান খান।

নিহত ব্যক্তি একই উপজেলার ধারা ইউনিয়নের পূর্বধারা গ্রামের মৃত ইজ্জত আলীর পুত্র বলে জানা যায়। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে জামিরুল ইসলাম জানায়, প্রতিবেশী খোকন, রাশিদ, সমশের, উছমানদের সঙ্গে তাদের প্রায় ১৫ শতাংশ জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ও মোকদ্দমা চলে আসছিল। গতকাল জোর পূর্বক বিরোধপূর্ণ জায়গাটি দখলে নেয় তারা। এরই ধারাবাহিকতায় আজ ভোররাতে একদল দুর্বৃত্ত তার নানাকে ঘুমন্ত অবস্থায় কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। তিনি একাই একটি ঘরে রাত্রিযাপন করতেন। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে এ সংক্রান্তের জের ধরে হত্যাকান্ড সংঘটিত হতে পারে।

খবর পেয়ে হালুয়াঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আমিনুল কবির তরফদার ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহীনুজ্জামান খান সঙ্গীয়পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহীনুজ্জামান খান বলেন, খবর পেয়ে হালুয়াঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আমিনুল কবির তরফদার ও তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Matched Content

সময় নিউজ ডট নেট এর কোনো সংবাদ,তথ্য,ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares